বিবাহের সুন্নাহ ও বিয়ের পূর্ব বিষয়ক

বিবাহের সুন্নাহ
বিয়েতে গায়ে হলুদ হারাম। আমাদের দেশে বড়যাত্রি কনের পিতাকে যেই ভাবে অত্যাচার করে তা একেবারেই ঠিক নয়। মুসলমান নামধারি একটা সমাজে আমরা নিজেদের মুসলমান দাবি করি কিন্তু আচরনে আমরা কখনই মুসলমান হতে পারিনি এখনো। যার একটা হল যৌতুক আর যৌতুকের একটা প্রকাশ হল বড়যাত্রি। আমাদরে ইসলামে বিবাহের মুলনীতিটা বুঝতে হবে সেটা হল। পাত্রের জন্য ফরজ হল তার স্ত্রীকে মহর দেওয়া এবং পাত্রের জন্য সুন্নাত হল উলিমা করে বন্ধু-বান্ধব আত্মীয় স্বজনকে খাওয়ানো। পাত্রির পিতার উপর কোন প্রকার খরচ আল্লাহ দেননি। তিনি ইচ্ছা করলে তার মেয়েকে বা তার জামাইকে খুশি হয়ে তিনি উপহার দিতে পারেন এইটা তার ঐচ্ছিক। বিবাহ উপলক্ষে বড়যাত্রি নিয়ে যেতে হবে এইটা ইসলামের কোন নির্দেশনা নয়। বড়যাত্রি যাওয়া হারাম না কিন্তু বাড়যাত্রি নামে যেই বিশাল দল নিয়ে মেয়ের পিতার উপর জুলুম করা হয় তা জঘন্য অপরাদ।

বিয়ের গেট বানিয়েছেন সম্মান করতে আর সেখানে যদি টাকা নেওয়া হয় তাহলে তা অসম্মান করা হল।

একমাত্র ইসলাম ধর্মে পাত্রির সম্মতির গুরুত্ব দেওয়া হয়েছে। আল্লাহর রাসূল (সা:) বলেছেন মেয়ে ছোট হক বা বড় হক মেয়ের অনুমুতি ছাড়া বিয়ে বৈধ না। মেয়ের সন্তুষ্টির সম্মতি লাগবে এবং সম্মতির সাক্ষী লাগবে। এরপর মসজিদে আগদা সমপন্ন করা হবে। আগদের ক্ষেত্রে কয়েকটা বিষয় রয়েছে যেমন: মহর নির্ধারন করা, খুদবা পড়া ও কবুল বলা।

মহর নির্ধারন:
মহর হতে হবে পাত্রির জন্য সম্মানজনক এবং পাত্রের সার্ধের ভিতরে। মহর সাথে সাথে না দিলেও বিবাহ হালাল হবে। মহর কিছু উষিল করে বাকিটা পরেও দেওয়া যায় এইটা সম্মতির ভিক্তিতে। তবে পরিশোধ করতে হবে। সমাজে প্রচলিত যে ক্ষমার বিষয় রয়েছে তা জঘন্য ও বর্বরতা। মহর পরিপূর্ন বুঝে দেওয়ার পর যদি স্ত্রী কিছু দিয়ে দেয় তাহলে সেটা স্বামী নিতে পারে বা ভোগ করতে পারে।

———————————————————————————–

প্রশ্ন করার ক্ষেত্রে:
প্রশ্ন করার সময় খুব সম্মান ও বিনয়ের সাথে বলুন। যার ইন্টারভিউ নিচ্ছেন তার উপর ভিক্তি করে আপনার প্রশ্ন বদলে যেতে পারে। কারন অনেকে খুব বেশি সেন্সিটিভ আমি কত ওয়াক্ত নামাজ পরি সেটা আপনাকে বলতে হবে। নামাজ নিয়ে প্রথমে প্রশ্ন করবেন না অন্যান্য প্রশ্নের মাঝে এই প্রশ্নটা করবেন। প্রথমে প্রশ্ন করবেন লেখা পড়া, গুন বিষয়ক ও পছন্দের বিষয়গুলো নিয়ে। এইভাবে প্রশ্ন করে পরিস্থিতি প্রথমেই সহজ করে ফেলুন এবং এর মধ্য থেকে আপনি তার স্মার্টনেস খুজে বের করুন। তারপর আপনার প্রশ্ন হতে পারে

১। আপনি কেমন স্বামী চান
২। হিজাব কি আপনার পছন্দ
৩। আপনি কি জব করতে আগ্রহী
৪। আপনার কোন খাবারটা বেশি পছন্দ
৫। আপনার কি হজ্ব করার ইচ্ছার আছে।
৬। প্রতিদিন আপনি কত ওয়াক্ত নামজ আদায় করেন। যদি আপনার কাছে অভিনয় মনে হয় তখন বলুন আজ ফজরের ওয়াক্তের শেষ সময় কখন ছিল। যদি না পারে তাহলে আরেকটা সুযোগ দেন বলুন মাগরিবের ওয়াক্ত কখন শুরু হয়।
৭। আপনি কি শুধু রমজান মাসেই রোজা রাখেন নাকি বছরের অন্যান্য সময়গুলোতেও রোজা রাখেন।
৮। আপনি কোন মাজহাবের কথা মেনে চলেন
৯। আপনার মতে ইসলামের সবথেকে গুরুত্বপূর্ন বই কোনটা

Dr. Abdullah Jahangir and Dr. Zakir Naik

Advertisements

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out /  Change )

Google photo

You are commenting using your Google account. Log Out /  Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out /  Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out /  Change )

Connecting to %s